Saturday, June 15, 2024
spot_img
spot_img
Homeখবরভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মনে করেন 'সব দেশেরই উচিত্‍ আন্তর্জাতিক আইনকে সম্মান...

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মনে করেন ‘সব দেশেরই উচিত্‍ আন্তর্জাতিক আইনকে সম্মান করা।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মনে করেন ‘সব দেশেরই উচিত্‍ আন্তর্জাতিক আইনকে সম্মান করা

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর তিন দেশ সফরের দ্বিতীয় পর্বে রবিবার (২১ মে) পাপুয়া নিউগিনি পৌঁছেছেন। প্রধানমন্ত্রী জাপান থেকে এখানে পৌঁছেছেন, যেখানে তিনি জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন এবং বেশ কয়েকটি বিশ্ব নেতার সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেছেন।
এর আগে, প্রধানমন্ত্রী মোদী রবিবার জাপানের হিরোশিমা শহরে অনুষ্ঠিত জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের অধিবেশনে বলেছিলেন যে, তিনি ইউক্রেনের বর্তমান পরিস্থিতিকে রাজনীতি বা অর্থনীতির সমস্যা হিসাবে বিবেচনা করেন না, তবে মানবতা এবং মানবিক মূল্যবোধের বিষয় হিসাবে বিবেচনা করেন।
তিনি সব দেশকে আন্তর্জাতিক আইন, সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতাকে সম্মান করার আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রী মোদীও স্থিতাবস্থা পরিবর্তনের একতরফা প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে একসঙ্গে আওয়াজ তোলার পক্ষে জোরালো পরামর্শ দিয়েছেন এবং বলেছেন যে, ‘সমস্ত দেশকে জাতিসংঘের সনদ, আন্তর্জাতিক আইন এবং একে অপরের সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতাকে সম্মান করা উচিত্‍।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংলাপ ও কূটনীতিই এই দ্বন্দ্ব নিরসনের একমাত্র উপায়। ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা এবং পূর্ব লাদাখে চীনের সঙ্গে চলমান সীমান্ত বিরোধের পটভূমিকায় প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্য এসেছে। তাঁর ভাষণে, প্রধানমন্ত্রী শনিবার ইউক্রেনের রাষ্ট্রপতি ভলোদিমির জেলেনস্কির সাথে অনুষ্ঠিত আলোচনার কথাও উল্লেখ করেন এবং বলেন যে, তিনি সংঘাত সমাধানের জন্য যা করা সম্ভব তা করবেন।
জেলেনস্কি জি-৭ গ্রুপের বৈঠকে ভাষণ দেওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী এই মন্তব্য করেন। যেখানে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা প্রচেষ্টায় তার দেশকে সমর্থন করার জন্য বিশ্বের দেশগুলোর কাছে আবেদন জানিয়েছেন।
ভগবান বুদ্ধের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ভারত ও জাপানে হাজার হাজার বছর ধরে ভগবান বুদ্ধকে অনুসরণ করা হয়েছে এবং আধুনিক যুগে এমন কোনও সমস্যা নেই, যার সমাধান আমরা বুদ্ধের শিক্ষায় খুঁজে পাই না।’ তিনি বলেন, ‘ভারত বরাবরই মত দিয়েছে যে কোনও উত্তেজনা, যেকোনও বিরোধ শান্তিপূর্ণ উপায়ে, আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত্‍ এবং আইনের মাধ্যমে কোনও সমাধান বের হলে তা মেনে নেওয়া উচিত্‍।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই চেতনায়ই ভারত বাংলাদেশের সাথে তার ভূমি এবং জাহাজ সীমান্ত বিরোধের সমাধান করেছে।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘উন্নয়নশীল দেশগুলোর সম্পদ সীমিত এবং তারাই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত। বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে এই দেশগুলো খাদ্য, জ্বালানি ও সার সংকটের সর্বোচ্চ এবং সবচেয়ে গভীর প্রভাবের শিকার হচ্ছে।’
প্রধানমন্ত্রী মোদী, তাঁর জাপানি সমকক্ষ ফুমিও কিশিদার আমন্ত্রণে জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের তিনটি অধিবেশনে যোগ দিতে শুক্রবার হিরোশিমা পৌঁছেছেন। জি-৭দেশগুলির মধ্যে রয়েছে জাপান, আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, কানাডা, ইতালি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন (EU)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments