Sunday, December 4, 2022
spot_img
spot_img
HomeদেশCyber Crime: ভুয়ো এই উইন্ডোজ ১১ ডাউনলোড করেছেন? বড়সড় ক্ষতির সম্মুখীন হবেন...

Cyber Crime: ভুয়ো এই উইন্ডোজ ১১ ডাউনলোড করেছেন? বড়সড় ক্ষতির সম্মুখীন হবেন পড়ুন পুরো রিপোর্ট

জানিয়ে রাখি যে, আগামী ৫ই অক্টোবর থেকে সর্বস্তরের মানুষের জন্য উইন্ডোজ ১১ আপডেট রোল-আউট করা হবে। এই মুহূর্তে শুধুমাত্র উইন্ডোজ ইনসাইডার (Windows Insider) প্রোগ্রামের অন্তর্ভুক্তরাই নতুন আপডেট ব্যবহারের আগাম ছাড়পত্র পেয়েছেন।

মাইক্রোসফটের (Microsoft) নয়া অপারেটিং সিস্টেম Windows 11 এখনো প্রকাশ্যে আসেনি। অথচ এর মধ্যেই সাইবার অপরাধীরা আসন্ন আপডেটের নাম ব্যবহার করে মানুষকে বোকা বানাতে শুরু করেছে! আজ্ঞে হ্যাঁ, মানুষের অনভিজ্ঞতা এবং জানাবোঝার অভাবকে কাজে লাগিয়ে চলতি বছরে Windows 11 Alpha নামক ম্যালওয়্যার অ্যাটাকের বাড়বাড়ন্ত তুমুল হয়ে উঠেছে। সম্প্রতি বহু মানুষ এই ম্যালওয়্যারের শিকার হচ্ছেন। আলোচ্য ম্যালওয়্যার আক্রমণ উইন্ডোজ ব্যবহারকারীর কম্পিউটারে ক্ষতিকারক কোড সক্রিয় করছে যা তাদের গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক তথ্য পৌঁছে দিচ্ছে সাইবার প্রতারকের হাতে। এভাবে Windows 10 বা তার পূর্ববর্তী উইন্ডোজ সংস্করণের সদস্যেরা স্রেফ নতুন আপডেট ডাউনলোড করতে গিয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

Windows 11 Alpha আপডেটের সত্যতা

এবার প্রশ্নটা হল Windows 11 OS প্রকাশ্যে আসতে যখন এখনো কিছুটা দেরী হয়েছে তখন প্রতারকেরা কিভাবে একে ব্যবহার করছেন। এক্ষেত্রে বলে রাখি, প্রতারকেরা সাধারণ মানুষকে যে আপডেটের লোভ দেখাচ্ছে তা আসলে একটি ক্ষতিকারক ম্যালওয়্যার ছাড়া অন্য কিছু নয়।

রিপোর্ট অনুযায়ী, সাইবার দুষ্কৃতিরা উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের একটি ওয়ার্ড ডকুমেন্ট ফাইল পাঠাচ্ছে যা Windows 11 Alpha আপডেটের সঙ্গে সাযুজ্যপূর্ণ বলে তাদের দাবী। ফলে সেটি ওপেনের জন্য নির্দিষ্ট কতগুলি পদক্ষেপ অনুসরণের কথা বলা হচ্ছে। এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করলেই সর্বনাশ। কারণ এর সাথে সাথেই ব্যবহারকারীর কম্পিউটারে একটি ক্ষতিকারক কোড সক্রিয় হয়ে পড়ছে। সেটি ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিতে অপরাধীদের সাহায্য করছে।

অ্যানোমালি সিকিউরিটি গবেষকেরা (Anomali Secutity Researchers) সর্বপ্রথম উইন্ডোজ ১১ আলফা ম্যালওয়্যারটিকে চিহ্নিত করেন। এই আক্রমণের পিছনে FIN7 নামে একটি সাইবার অপরাধী সংস্থার হাত আছে বলেও অ্যানোমালি সিকিউরিটির অনুসন্ধানকারী দল জানিয়েছে। কিভাবে অপরাধীরা ক্ষতিকারক ফাইলটিকে উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিচ্ছে সেটা অবশ্য এখনো স্পষ্ট নয়। তবে সিকিউরিটি সংস্থার দাবী খুব সম্ভবত ভুয়ো ইমেইলের সাহায্যেই অপরাধীরা এক্ষেত্রে মানুষকে প্রভাবিত করছে।

ঠিক যেভাবে কাজ হাসিল করছে প্রতারকেরা

আগেই বলেছি, উইন্ডোজ ১১ আলফা ম্যালওয়্যারের কাজ করার ধরন খুবই সরল। উইন্ডোজ ব্যবহারকারী কাছে নকল ওয়ার্ড ডকুমেন্ট ফাইল আলফা আপডেট ডাউনলোডের জন্য তাদের প্রলুব্ধ করাটাই এক্ষেত্রে প্রতারকদের উদ্দেশ্য। যেহেতু উইন্ডোজ ১১ আলফা ডাউনলোড ছাড়া অন্য কোন উপায়ে ফাইলটি খুলবেনা, তাই তথাকথিত কম খোঁজখবর রাখা লোকেরা ফাইলে নির্দেশিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করেন। এর ফলে তার কম্পিউটারে পূর্বোক্ত ক্ষতিকারক কোড সক্রিয় হয়। এটি তার ডিভাইসে একটি জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যাকডোর (JavaScript Backdoor) ডাউনলোড করে যা কম্পিউটারের থেকে ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য চুরিতে মদত জোগায়।

উপরোক্ত পদ্ধতিতে FIN7 গ্রুপ ইতিমধ্যেই প্রায় ১৫০ লক্ষ পেমেন্ট কার্ডের তথ্য সংগ্রহ করেছে। এদের আনুমানিক মূল্য প্রায় ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের থেকেও বেশী। খুব সুচতুরভাবে এই সাইবার অপরাধীদের দলটি মানুষকে প্রতারণার জন্য Windows 11 Alpha ম্যালওয়্যারটিকে সামনে এনেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments