Sunday, March 3, 2024
spot_img
spot_img
HomeখবরAdhir ranjan Chowdhury আজ বহরমপুর জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেস...

Adhir ranjan Chowdhury আজ বহরমপুর জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধিক রঞ্জন চৌধুরী।

Pc news Bangla:- আজ বহরমপুর জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা বহরমপুরের সংসদ শ্রী অধিক রঞ্জন চৌধুরী (Adhir ranjan Chowdhury) তিনি বলেন কৃষকদের জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার কোন বিনিয়োগ করে না, পশ্চিমবঙ্গে কৃষকদের গড় আয় কমিয়েছে বলে তিনি বলেন। তিনি এ বিষয়ে বলেন কৃষি পণ্য যার ন্যূনতম দাম কৃষকের পাওয়া উচিত সেই ন্যূনতম দাম কৃষক পায় না কিন্তু অধীর বলেন আপনি চলে যান কংগ্রেস পরিচালিত রাজ্যে যেখানে একজন কৃষক এক কুইন্টাল ধান বিক্রি করে পায় আড়াই হাজার টাকা। আর পশ্চিমবঙ্গে একজন চাষী ধান বিক্রি করতে গেলে তৃণমূল নেতা টোকেন দেয়ার লোক এবং ফরেদের দেয়ার পর চাচির কাছে আর টাকা থাকেনা স্বাভাবিকভাবে কৃষক বাজার থেকে ঋণ নিচ্ছে কিন্তু ঋণ শোধ করার ক্ষমতা থাকছে না। অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেন বাজারের স্যারের দাম বাড়ছে, বীজের দাম বাড়ছে আনুষঙ্গিক খরচ বাড়ছে তারপর যখন ফসল হচ্ছে সেই ফসল বিক্রি করে কৃষক দাম পাচ্ছে না ফলে আজকে কৃষককে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হচ্ছে।

Adhir ranjan Chowdhury আজ বহরমপুর জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধিক রঞ্জন চৌধুরী।

এটাই বাংলার উন্নয়নের চেহারা। অধীর চৌধুরী বলেন এই বাংলায় কৃষক আত্মহত্যা করে শ্রমিক আত্মহত্যা করে আত্মহত্যা না করলে অপহরণ করে তাকে মেরে ফেলা হয় এই বাংলা জুড়ে এই অরাজকতা চলছে। অধীর বীরভূমের বাটুই কান্ডের ঘটনা সম্বন্ধে বলেন এই ঘটনায় সারা পশ্চিমবঙ্গ নয় ভারতবর্ষ জুড়ে আতঙ্ক ঘটেছিল এবং এই বাগটুই কান্ডের ঘটনা আমরা দেখতে পেলাম সাধারণ মানুষ তারা জানে না তাদের দোষ কি তাদের জীবন্ত পুড়িয়ে মেরে দেয়া হচ্ছে, সেখানে পুলিশ যায় না কারো বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় না সিবিআই তদন্তও হয় না এই অবস্থায় এখন তৃণমূল পার্টি পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে যারা সাক্ষী তাদেরকে এখন থেকে টাকার অফার দিয়ে যাচ্ছে যাতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনরকম কথা না বলে।

Adhir ranjan Chowdhury আজ বহরমপুর জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধিক রঞ্জন চৌধুরী।

Chit fund case এবার চিটফান্ড কাণ্ডে বীজপুরের বিধায়কের বাড়িতে সিবিআই হানা।

এই বাপ তুই কাণ্ডে মমতা ব্যানার্জি বলেছিলেন কেউ ছাড়া পাবে না কিন্তু সেখানে তৃণমূলের নেতারা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে সাত সাক্ষীদের বাড়ি গিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার অফার দিয়ে আগামী দিনে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যাতে কোন কথা না বলেন তার ব্যবস্থা করছেন । এটা আপনাদের আগের থেকে আমি জানিয়ে রাখলাম বললেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments