Thursday, December 8, 2022
spot_img
spot_img
Homeখবরজন্মাষ্টমীতে এই নিয়ম মেনে গোপালের পুজো করুন, অবশ্যই মনোবাসনা পূর্ণ হবে

জন্মাষ্টমীতে এই নিয়ম মেনে গোপালের পুজো করুন, অবশ্যই মনোবাসনা পূর্ণ হবে

শোনা যায়, ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে যখন রোহিণী নক্ষত্র দেখা যায়, তখন জন্মাষ্টমী (
) পালিত হয়। এই দিনেই ধরাধামে অবতীর্ণ হয়েছিলেন দেবকী ও বাসুদেবের অষ্টম সন্তান শ্রী কৃষ্ণ (Shree Krishna)।

বিষ্ণুর অষ্টম অবতার হিসেবে তিনি পূজিত হন। সারা দেশেই পালিত হয় জন্মাষ্টমী। এবার ৩০ আগস্ট গোপালের আরাধনায় মাতবেন দেশবাসী।

কথিত আছে, বিশেষ এই দিনে যদি নিয়ম-নিষ্ঠা মেনে গোবর্ধনের আরাধনা করা যায়, তাহলে কাঙ্খিত ফল মেলে। জীবনের সমস্ত সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। অর্থ লাভ তো হয়ই, পাশাপাশি সংসারে সুখ ও সমৃদ্ধি বজায় থাকে। কী সেই নিয়ম?

একটি হলুদের গাঁট নিয়ে তা হলুদ কাপড় দিয়ে মুড়িয়ে গোপালের চরণে রেখে দিতে হবে। পুজো সম্পন্ন হলে তা টাকা রাখার স্থানে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়। এতে সংসারে অর্থকষ্ট হয় না।
ময়ূরের পালক শ্রী কৃষ্ণের অত্যন্ত প্রিয়। তাঁর মুকুটেও শোভা পায়। তাই জন্মাষ্টমীর দিন বাড়িতে ময়ূরের পালক আনা শুভ বলে মনে করা হয়।
হলুদ রং কেশবের পছন্দ। তাই হলুদ রঙের ফুল দিয়ে পুজো করলে তিনি তুষ্ট হবেন আর আপনার মনের কামনা পূর্ণ হবে।
কৃষ্ণের চরণে পদ্মফুল অর্পণ করুন। এতে বিষ্ণুদেবের পাশাপাশি লক্ষ্মী দেবীও তুষ্ট হন। আর আপনার সংসারের সমৃদ্ধি বজায় থাকে।

আপনার জীবনে কখন আসবে ভাল সময়, শ্রীকৃষ্ণের এই ৭টি সংকেতেই মেলে উত্তর

তালের বড়া, মালপোয়া, লাড্ডু, সন্দেশ – জন্মাষ্টমীতে গোবিন্দের চরণে অনেক ভোগই দেওয়া হয়। নিজের রাশি মেনেও ভোগ নিবেদন করতে পারেন। তাতে আপনার মনোবাঞ্ছা পূর্ণ হবে।

মেষ রাশির মানুষজন গোমাতাকে মিষ্টি খাওয়াবেন।
দুধ, দই ও রসগোল্লা দিতে পারেন বৃষ রাশির জাতকরা।
মিথুন রাশির জাতকরা গোপালকে নকুলদানা দিতে পারেন। আর গোমাতাকে পালং শাক কিংবা ঘাস খাওয়ালে ভাল।
নন্দের নন্দন মাখন ও মিছরি খেতে ভালবাসেন। তা দিয়েই ভোগ সাজান কর্কট রাশির মানুষজন।
সিংহ রাশির জাতকরা দিন পাঁচ রকমের ফল। তাতে বেলও রাখতে পারেন।
কন্যা রাশির মানুষজন কেশবকে কেশরযুক্ত দুধ উত্‍সর্গ করুন।
কালাকাঁদ ও সন্দেশ দিতে ভোগ সাজাতে পারেন তুলা রাশির মানুষজন।
বাসন্তী পোলাও, নকুলদানা, মেওয়া ননীচোরকে দিতে পারেন বৃশ্চিক রাশির জাতকরা।
বংশীধারীকে কেশর মেশানো আমন্ড পুডিং দিতে পারেন ধনু রাশির মানুষজন।
মকর রাশির জাতকরা ধনে ও পোস্ত দিয়ে চক্রপাণীর আরাধনা করতে পারেন।
সুগন্ধী ধূপ জ্বালিয়ে কুম্ভ রাশির মানুষদের কেশবের আরাধনা করা উচিত। সঙ্গে মিষ্টিও দেবেন।
মীন রাশির জাতকরা কলা, জিলিপি দিয়ে গোপালকে ভোগ দিতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments